গহীন জঙ্গলে সাফারি ভ্রমন-১

30/05/2013 16:14

undefined

সাফারি পার্কের প্রবেশ দ্বার

জ্যোৎস্না স্নান, বারভিকিউ পার্টির পরে সাফারি ভ্রমণ হলে কেমন হয়? তাও গহীন আফ্রিকান জঙ্গলে? সেই সাথে, যদি সাথে থাকে আফ্রিকান ট্র্যাডিশন্যাল খাবার আর মিউজিক? শুধু কি তাই? হাতে একটা জুম ল্যান্সের ডি এস এল আর ক্যামেরা! জাস্ট মাইন্ড ব্লইং!!!

হ্যা! এমনই এক অসাধ্য (আমার জন্যে) কাজ সাধন করেছি গত ১৭ই এপ্রিল। আর সেই সাফারি ভ্রমণের মজার মজার অভিজ্ঞতা আর ছবি নিয়ে আমার এই ধারাবাহিক “গহীন জঙ্গলে সাফারি ভ্রমনে ”।

সাফারি ভ্রমনে আমাদেরকে বহন করা রেঞ্জার ট্রাক

সাফারি আর চিড়িয়াখানার মধ্যে আমি একটা সুন্দর পার্থক্য খুঁজে পেয়েছি। জানিনা অন্যদের কাছে কেমন লাগবে। সেটা হচ্ছে চিড়িয়াখানায় প্রাণীরা খাঁচার ভিতরে থাকে আর আমরা থাকি বাহিরে। তবে সাফারি ভ্রমানে আমাদেরকেই থাকতে হয় খাচায় আর প্রাণীরা থাকে বাহিরে।



আমি যে সাফারি পার্কের কথা বলব সেটা ইংল্যান্ডের ক্যান্ট কাউন্টির ইংলিশ চ্যানেলের লিম্পিন(Lympne) নামক জায়গায় প্রায় ৬০০ একর জায়গা নিয়ে এক বিশাল গহীন জঙ্গল। এটি আফ্রিকান জঙ্গলের আদলেই তৈরি করা হয়েছে। আমার বিশ্বাস আপনি যখন গহীন জঙ্গলের ট্রেইল ধরে সামনের দিকে এগিয়ে যাবেন তখন আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন। এখানে যেমন সমতল ভূমি আছে তেমনি আছে বিশাল পাহাড় আর গহীন জঙ্গল। যেমন আছে পাখির কিচির মিচির, গাছের মগ ডালে ঈগলের বাসা, তেমনই আছে বন্য প্রাণীদের পিলে চমকে দেয়া গর্জন।



ইতিহাসের পাতা উল্টালে জানা যায় প্রথম বিশ্ব যুদ্ধের সময় আর্কিটেক্ট Sir Herbert Baker এটি Sir Philip Sassoon এর জন্যে ডিজাইন করে দেন। এটি সর্ব প্রথম ১৯৭৬ সালে জনসাধারনের জন্যে খুলে দেয়া হয়। তবে ১৯৮৪ সাল থেকে The John Aspinall Foundation নামক একটি চ্যারিটি সংস্থা এটি দেখাশোনা করে আসছে। এতে প্রায় ৫০+ প্রজাতির প্রায় ৬৫০+ প্রাণী রয়েছে।

মূল এলাকাটি মুটামুটি (আমার মতে) দুই ভাগে ভাগ করা। এক ভাগ গহীন অরন্য যেখানে ভিজিটরকে বিশেষ গাড়িতে করে নিয়ে যাওয়া হয় আর অন্য অংশ (গহীন অরন্য নয়) যেখানে আপনি ইচ্ছে করলে বিশেষ ট্রেইল ধরে হেটে যেতে পারেন। এধরনের ট্রেইলের পাশে বিশেষ ইলেকট্রিক তার রাখা হয়েছে যাতে বন্য প্রাণী ট্রেইলে এসে ভিজিটরদের আক্রমন করতে না পারে। এত কিছুর পরেও এখানে ২০০০ সালে একজন রেঞ্জার একটি বন্য হাতির আক্রমণে মারা যান।


সাফারি ভ্রমনে এই পিচ্চিরাও ছিল আমাদের সাথে

[পরবর্তী পর্বে থাকছে সম্পূর্ণ সাফারি ভ্রমণের বর্ণনা সহ আমার ক্যামেরায় ধারন করা বিভিন্ন বন্য প্রাণীদের ছবি ]